চোখের যত্ন নিচ্ছেন তো? | চোখের যত্ন নিতে করণীয়!  Banner Photo

Ω author: PlexusD

 35  1  0

মাথার চুল থেকে পায়ের নখ পর্যন্ত সুন্দর রাখতে আমাদের চেষ্টা যেন শেষ নেই। পার্লার থেকে জিমে যাওয়া কোন কিছুই বাদ রাখি না। অথচ একটি বারও ভাবি না সুনয়না চোখের কথা। কিন্তু যখন সাজতে বসি প্রথমেই মাথায় আসে চোখ দুটিকে কিভাবে সাজাবো। তখন আর কিছু পরোয়া করি না। তাই চোখ বাবাজিও মাঝে মাঝে বিগড়ে বসে! এ জন্যই নিয়মিত চোখের যত্ন নেওয়া দরকার। আসুন জেনে নেই নিয়মিত চোখের যত্ন নেওয়ার কিছু সহজ উপায়।

চোখের সুস্থতার জন্য চোখের কিছু ব্যায়াম

১. চোখের ক্লান্তি দূর ও পেশি শক্তিশালী করতে ক্লকওয়াইজ ও এন্টি ক্লকওয়াইজ (Anti-Clockwise) চোখের মণি ঘুরিয়ে চোখের ব্যায়াম ১০ সেকেন্ড করে করুন।

২. চোখের পেশির রক্ত সরবরাহ সচল রাখতে দুই হাতের তালু কয়েক মিনিট ঘষে আলতোভাবে হাতের তালু দিয়ে আলাদা করে চোখ বন্ধ রাখুন পাঁচ সেকেন্ড ।

৩. এক হাত দূরে একটি কলম নিয়ে সোজা কলমটির দিকে তাকিয়ে থাকুন তারপর ধীরে ধীরে কলমটিকে কাছাকাছি নিয়ে আসেন যতক্ষণ পর্যন্ত না কলমটিকে ঘোলাটে দেখা যায়। এরপর আবারও কলমটিকে ধীরে ধীরে কাছে থেকে দূরে নিয়ে যান এবং খেয়াল রাখুন চোখের দৃষ্টি যেন কলমের দিকে থাকে।

৪. চোখের ফ্লেক্সিবিলিটি বাড়াতে ঘরের সব ছোটখাট বস্তুগুলোর দিকে হালকাভাবে একটার পর একটাতে দৃষ্টি বুলাতে থাকুন।

৫. রাতে ঘুমানোর সময় চোখ বন্ধ করে চোখের পাতা আঙুলের ডগা দিয়ে হালকা করে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ২ মিনিট ম্যাসাজ করুন।


নিয়মিত চোখের যত্ন নিতে কিছু খাদ্য তালিকা

৬. বিভিন্ন শাক সবজিঃ  শাক সবজিতে আছে ভিটামিন সি, বিটা ক্যারোটিন, লুটেইন এবং জিয়াক্সানথিন যা সূর্য থেকে আসা সূর্যের অতি বেগুনী রশ্মি থেকে চোখকে বাঁচায়।

৭. গাজরঃ বিটা ক্যারোটিন (Beta carotene) এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্টে (Antioxidant) ভরপুর গাজর চোখের ম্যাকুলার কমে যাওয়া এবং ছানি পড়া প্রতিরোধ করে। গাজর খেলে চোখে কম দেখা সংক্রান্ত জটিলতা দূর হয়ে যায়। এই সবজিটি আপনি সালাদের সাথে বা রান্না করে খেতে পারেন। তবে কাঁচা খেলে বেশি উপকার পাওয়া যাবে।

৮. ডিমঃ গবেষকদের মতে, ডিমের কুসুমে প্রচুর পরিমাণে লুটেইন (lutein)জিয়াক্সানথিন (Zeaxanthin) এবং জিংক (Zinc) আছে যেগুলো চোখের ম্যাকুলার (Mcular) পতন রোধে সাহায্য করে থাকে। এজন্য প্রতিদিন অন্তত একটি করে ডিম খেতে পারেন।

৯. কাজুবাদামঃ গবেষকরা বলেন কাজুবাদামে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই (Vitamin E) যা চোখের ম্যাকুলার (Macular) পতন অনেকটা কমিয়ে ফেলতে পারে।

১০. মিষ্টি আলু মিষ্টি আলুতে প্রচুর পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন (Beta carotene) রয়েছে যা চোখের দৃষ্টিশক্তি বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে এবং রাতের আলোতে চোখের দৃষ্টি ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে।

 

যে সমস্ত খাবারে ভিটামিন এ (Vitamin A), ভিটামিন সি (Vitamin C) এবং ভিটামিন ই (Vitamin E) এর মতো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে সে সমস্ত খাদ্য রোজকার খাবারে রাখার চেষ্টা করুন। তাছাড়া ভিটামিন ডি (Vitamin D) যুক্ত খাবার খাওয়া প্রয়োজন। গাজর, বিট, পেঁপে ইত্যাদি পুষ্টিকর শাক সবজি ও ফল খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে।

 

এছাড়াও নিয়মিত চোখের যত্ন নিতে আপনি আরও যা যা করতে পারেন :

 

১১. মুলতানি মাটি ও কয়েক ফোঁটা লেবুর রস দইয়ের সাথে মিশিয়ে চোখের নিচে লাগালে উপকার পাবেন।

১২. তুলসি পাতা বাটা (Tulshi Paste) ও চন্দন বাটা (Chandon Paste), গোলাপ জল (Rose Water) দিয়ে মিশিয়ে চোখে লাগান।

১৩. ঠান্ডা টি-ব্যাগ (Tea Bag) চোখের পক্ষে আরামদায়ক।

১৪. পুদিনা পাতার রস (Mint leaves juice) চোখর কালো (Dark Circle) দাগ দূর করতে সাহায্য করে। পুদিনা পাতার রস তুলাতে করে চোখের যে অংশে কালো দাগ আছে সেখানে লাগান, সেক্ষত্রে সাবধান থাকবেন যেন কোনভাবেই এই রস চোখের ভেতরে প্রবেশ না করে।

১৫. ঘুমাতে যাওয়ার আগে চোখ বন্ধ করে চারপাশে বাদামের তেল দিয়ে ম্যাসেজ করুন। বাদামের তেল কালো দাগ তুলতে খুব ভালো কাজ করে এবং চোখের চামড়া কুঁচকানোও দূর করে।

১৬. চোখের মেকআপের জন্য সব সময় খুব ভালো ব্র্যান্ড বা প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে দামের সঙ্গে একটু কম্প্রোমাইজ করে নিন। দিনের বেলাতে চোখে খুব একটা চড়া মেকআপ না করাই ভালো। সান প্রটেক্ট মেকআপ (Makeup) প্রোডাক্টই দিনে ব্যবহার করুন। রাতে ঘুমানোর আগে মেকআপ অবশ্যই খুব ভালো করে তুলে নিয়ে তবেই শুতে যাবেন।

১৭. চোখের মেকআপ তুলতে অলিভ তেল (Olive Oil) বা আমন্ড তেল (Almond Oil) ব্যবহার করুন। আন্ডার আই ক্রিম (Under Eye Cream) ব্যবহার করুন বিশেষজ্ঞের মতামত নিয়ে।

১৮. দিনের বেলা বাইরে বেরোনোর সময় সূর্যের আলো থেকে চোখকে বাঁচাতে সানগ্লাস (Sun glass) ও ছাতা ব্যবহার করুন।

১৯. ঘুম চোখকে পরিপূর্ণ বিশ্রাম ও পুনর্দৃষ্টির জন্য শক্তি দেয় তাই চোখের সুরক্ষার জন্য প্রতিদিন আট ঘণ্টা ঘুমানো উচিত।

২০. রোজ সকালে ১০ মিনিট চোখের ব্যায়াম করুন। চেষ্টা করুন দুশ্চিন্তা থেকে বিরত থাকার।

২১. যখন তখন চোখে হাত দিবেন না তাতে হাতের ময়লা থেকে ইনফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে এবচোখের নরম ত্বকে বলিরেখা পড়ে।

২২. দৃষ্টিশক্তি ঠিক রাখার জন্যে ভিটামিন এ সমৃদ্ধ খাবার খান যেমন, গাজর, মিষ্টি আলু, মিষ্টি কুমড়া, আম, লালশাক ইত্যাদি।

 

নিয়মিত চোখের যত্ন নিতে আরো কিছু টিপসঃ

প্রতিদিন অন্তত ৮/১০ গ্লাস পানি পান করুন।

চোখের তলায় কালি থাকলে দূর করতে আলু কিংবা শসার টুকরো চোখের ওপর দিয়ে ১০ মিনিট চোখ বন্ধ করে বিশ্রাম নিন।

বেশি বেশি সবুজ শাক-সবজি খান। খাবারের পাশাপাশি সালাদ খাবেন।

বাইরে থেকে ফিরে চোখে পরিষ্কার পানি দিয়ে ঝাপটা দিন।

ধূমপান থেকে বিরত থাকুন। আমরা যাই করি না কেন যদি নিয়মিত করতে পারি তবে তার ফল আমরা অবশ্যই পাব।

 

 

 

Share On Facebook

please login to review this blog and to leave a comment.


More From PlexusD

এবারের ডেঙ্গু কেনো অন্যবারের চেয়ে আলাদা?

published on: 22 Jul, 2019

এবারের ডেঙ্গু কেনো আলাদা?: এবারের ডেঙ্গু জ্বরের সাথে আগের মিল নেই। নতুন কোন শক্তিশালী ডেঙ্গু ভাইরাস দিয়ে ছড়ানো এই অসুখ এবার ঢাকায় রীতিমতো মহামারি ...

 6387    2    0 
কোন সমস্যায় কোন ডাক্তারের কাছে যাবেন || পর্ব ০২ ||

published on: 07 Jul, 2019

প্রথমবারের মত কোনো রোগের উপসর্গ দেখা গেলে সবার প্রথমেই আমরা যেই ব্যাপারটা নিয়ে সবচেয়ে বেশী চিন্তায় পড়ি তা হচ্ছে, কোন ডাক্তারের কাছে যাব! পেটে ব্যথা হচ্ছে

 3480    1    1 
কোন সমস্যায় কোন ডাক্তার দেখাবেন || পর্ব ০১ ||

published on: 07 Jul, 2019

প্রথমবারের মত কোনো রোগের উপসর্গ দেখা গেলে সবার প্রথমেই আমরা যেই ব্যাপারটা নিয়ে সবচেয়ে বেশী চিন্তায় পড়ি তা হচ্ছে, কোন ডাক্তারের কাছে যাব! পেটে ব্যথা হচ...

 2307    2    0 

More From Health & Lifestyle

ডায়াবেটিস নিয়ে মানুষের যত ভুল ধারণা!

author: Hasnat Zahan Shapla

বাংলাদেশে ২০৩৫ সালের মধ্যে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা দাঁড়াবে ১২৩ মিলিয়নে! নগরায়ন ও শ...

 1735    4    1 
কুইজঃ কতটুকু চিনি আপনার জন্যে ক্ষতিকর?

author: Farhin Ahmed Twinkle

আপনি কি খুব বেশি চিনি খাচ্ছেন? আপনার চিনি খাওয়ার অভ্যাসের ধারণা পেতে এই কুইজটির সকল প্রশ্নের উত্তর দিন — এবং আপনার এই অভ্যাস কাটাতে সহায়তা করার জন্য টিপস সম্পর্কে জ...

 1248    1    0 
হৃদরোগের ওষুধঃ কিডনির বন্ধু নাকি শত্রু?

author: Shakhawat Hossain Akash

আমাদের দেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের মধ্যে হৃদপিণ্ড এবং কিডনি অন্যতম। একদিকে হৃদপিণ্ড যখন সারা শরীরের অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্ত সঞ্চালনের কাজ করে , অন্যদিকে কিডনি রক্তের ফিল্টার করে ও বর্জ্যগুলো বের করে ...

 1153    2    0